মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৯:০৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ঘোষণা :

ছাতকে ইউপি সদস্যের বাড়ী থেকে গুরু চুরি,উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে আতংক

 

ছাতক প্রতিনিধি
গত কয়েক বছর যাবৎ ছাতক উপজেলায় বেরেছে গরু চুরি,প্রায় প্রতিরাতই চুরি হচ্ছে কৃষকের গরু, চুরির উউসবে মেতে উটেছে পেশাদার চুরেরা।প্রশাসন কর্তৃক চিহ্নিত এসব চুরদের বারবার গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করলেও জামিনে বের হয়ে পুনরায় গরু চুরির অপরাধে লিপ্ত রয়েছে তারা। উপজেলার কালারুকা ইউনিয়নের হাসনাবাদ ও আশপাশ এলাকায় ব্যাপকহারে গরু চুরি বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রায় রাতেই ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে গরু চুরির ঘটনা ঘটছে বলে জানা গেছে।গত ১৪ মে শনিবার রাতে কালারুকা ইউপির হাসনাবাদ গ্রামের বর্তমান ইউপি সদস্য মোঃ তাজ উদ্দিনের পিতা মোঃ আখলুছ আলীর ৭০হাজার টাকা মুল্যের ১টি গাভি ও গাভির বাচ্ছা চুরি হয়েছে। গোয়াল ঘরের দরজার তালা ভেঙ্গে গরুগুলো চুরি করা হয়। একই রাতে নৌকাকান্দি গ্রামের আছাব আলীর একটি গাভীও চুরি হয়েছে।এর আগে আকুপুরের মাসুক মিয়া, করছখালী গ্রামের ফয়জুল ইসলাম ও নূরুল হক সহ এলাকার অনেকের গরু চুরি হয়েছে। এসব গরুর কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।এভাবে কালারুকা ইউনিয়নের মুক্তিরগাঁও, মাধবপুর, বোবরাপুর, আরতানপুর, রামপুর, আজিধরপুর, ছিক্কা, করচা, উজিরপুর, নূরুল্লাপুর, রায়সন্তেুাষপুর, তাজপুর, জামুরাইল, হাসনাবাদ, রাজাপুর, কালারুকাসহ ইউনিয়নের অর্ধশতাধিক গ্রামে প্রতিরাতেই ঘটছে গরু চুরির ঘটনা। ফলে কৃষকদের মনে আতংক বিরাজ করছে। ইউপি সদস্য তাজ উদ্দিন জানান এ বিষয়ে থানায় একটি অভিযোগ করেছি চিহ্নিত চুরদের আইনের আওতায় নিলে এসব চোরির রহস্য উদঘাটন হতে পারে।

চুরি হওয়া গরুর মালিক অনেকেই জানান চিহ্নিত চুরেরা বারবার প্রশাসনের হাতে আটক হলেও জামিনে বেরিয়ে চুরিকে পেশা করে নিচ্ছে।
এব্যাপারে ইউপি সদস্য তাজউদ্দীন ও চুরি হওয়া গরুর মালিকরা চোরদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে থানা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এসব চুরির মামলায় সাধারনত ৩৭৯,৩৮০ ধারা থাকায় পুলিশ গ্রেফতার করলেও সহজে জামিন পেয়ে যায় চুরেরা,চিহ্নিত এসব চুরদের বিরুদ্ধে একাদিক মামলা থাকলেও আইনের ফাকফুকরে জেল থেকে বেরিয়ে পরছে।এদের সাথে নতুন নতুন চুরদেরও আবির্ভাব ঘটছে বিদায় প্রতিনিয়ত বারছে চুরির ঘটনা।এদের বিষয়ে এখনই কটুর ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা